ডিজিটাল লেনদেন বাড়াতে Incentive Scheme নিয়ে এল কেন্দ্র;ভীম ইউপিআই,রূপে ডেবিট কার্ডে মিলবে বিশেষ সুবিধা।

সারাদেশ জুড়ে ডিজিটাল লেনদেন (Digital Payment In India) বাড়াতে বড় সিদ্ধান্তের পথ হাটলো কেন্দ্র সরকার। এবার থেকে ডিজিটাল লেনদেনে করলে মিলবে ইনসেনটিভ। বুধবার প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে অর্থনীতি বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকে এই ইনসেনটিভ খাতে বরাদ্দ করা হয়েছে ২৬০০ কোটি টাকা। তবে নতুন এই ইনসেনটিভ স্কিমের (Incentive Scheme) বিষয়ে আপাতত বিশেষ খোলাসা করেনি সরকার। জানা যাচ্ছে দেশজুড়ে কম টাকার ভীম ইউপিআই (Low Value Bhim Upi Transation) ও রূপে ডেবিট (Rupay Debit Card Transaction) কার্ডের লেনদেন জনপ্রিয় করতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে চলতি ২০২২-২০২৩ অর্থবর্ষে ইউপিআই (Person to Merchant or P2M)ও রূপে ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে ই-কমার্স ও পিওস এর মাধ্যমে (Point Of Sale) ট্রানজাকশন বাড়ানোর জন্য ব্যাঙ্কগুলিকে এই ইনসেনটিভ প্রকল্পের মাধ্যমে ইনসেনটিভ দেবে সরকার।। এই ইনসেনটিভ স্কীমের মাধ্যমে ইউপিআই লাইট (UPI Lite) ও ইউপিআই 123PAY (UPI 123PAY) প্রোগ্রামকেও জনপ্রিয় করে তোলা হবে।

(আরও পড়ুন : PM Awas Yojana : শুরু হল অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর প্রক্রিয়া,সময়সীমা বেঁধে দিল নবান্ন)

বর্তমানে প্রত্যেকের হাতে হাতে স্মার্টফোন চলে আসায় দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে ডিজিটাল লেনদেন। করোনার কারণে বড় ব্যাবসার পাশাপাশি ছোট ব্যাবসাগুলোও ঝুকেছে ডিজিটাল লেনদেনের দিকে। পেটিএম,গুগুল পে,ফোন পে অ্যাপ্সের মাধ্যমে ডিজিটাল লেনদেন নতুন মাত্ৰা ছুঁয়েছে। ন্যাশনাল পেমেন্টস কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (NPCI) তথ্য অনুযায়ী ২০২১ সালের তুলনায় ২০২২ সালে ডিজিটাল লেনদেন বেড়েছে প্রায় ৫৯ শতাংশ,২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে ইউপিআই (UPI) এর মাধ্যমে এখনও পযন্ত রেকর্ড ১২.৮৩ লাখ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে,২০২২ সাল জুড়ে প্রতি সেকেন্ডে ২৩৪৮ টি ইউপিআই লেনদেন হয়েছে। যেখানে ২০২০-২০২১ অর্থবর্ষে ডিজিটাল লেনদেনের পরিমাণ ছিল ৫৫৫৪ কোটি টাকা সেখানে ২০২১-২২ অর্থবর্ষে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৮৪০ কোটি টাকা। আরও জানানো হয়েছে ২০২০-২০২১ অর্থবর্ষের তুলনায় ২০২১-২০২২ অর্থ বর্ষে ভীম ইউপিআই এর ব্যবহার ১০৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে,২০৩৩ কোটি টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৫৯৭ কোটি টাকা।

২০২২ সালের ডিসেম্বর মাস পযন্ত বর্তমানে সারা ভারতে ৩৮২ টি ব্যাংক ইউপিআই পেমেন্ট সুবিধা প্রদান করে। বর্তমানে ভারতবর্ষে ৩৫ কোটি লোক নিয়মিত ডিজিটাল লেনদেন করেন,যা ২০৩০ সালের মধ্যে ৭০ কোটিতে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যমাত্ৰা রেখেছে কেন্দ্র সরকার।

শেয়ার করুন

Leave a Comment