১ এপ্রিল থেকে বাতিল হচ্ছে এই গাড়ি গুলি; জেনে নিন সরকারের নতুন নিয়ম।

old vehicles will be scrapped in india 2023

আপনার কাছে যদি পুরোনো গাড়ি থেকে তাহলে সেটি দ্রুত পাল্টানোর ব্যবস্থা করুন। কারণ ১ এপ্রিল ২০২৩ থেকে পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা দেশের সমস্ত পুরোনো গাড়ি বাতিল ও স্ক্রাপিং করা হবে। তবে শুধু মাত্র সেই সমস্ত গাড়ি গুলিকে বাতিলের লিস্টে ধরা হবে যাদের বয়স ১৫ বছরের বেশি। প্রথমে সরকারি গাড়ি এবং পরবর্তীতে বেসরকারি গাড়ির ক্ষেত্রে এই নিয়ম চালু করা হবে।

বুধবার বাজেট ২০২৩ ঘোষণায় দেশের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন দেশের পুরোনো গাড়ি বাতিলের কথা জানান। দেশে সবুজায়ন বৃদ্ধি ও পরিবেশ দূষণ কম করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত বলে তিনি জানান।দেখা গেছে দেশে পুরোনো গাড়ির সংখ্যা প্রচুর বেড়ে যাওয়ায় ফলে অধিকহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে দূষণ।

দূষণের মাত্রা কম করার জন্য বর্তমানে বানানো গাড়ি গুলিতে বিভিন্ন টেকনোলজির ব্যবহার হচ্ছে,যা পুরোনো গাড়ির মধ্যে যোগ করা সম্ভব না ফলে সেই সমস্ত গাড়ির দ্বারা দূষণ অধিকহারে ছড়াচ্ছে। এদিকে ভারতে ২০২২ সালে প্রায় ৩৮ লক্ষ গাড়ি বিক্রি হয়েছে।

কেন্দ্র সরকারের এক রিপোর্ট অনুসারে ২০২৫ সালের মধ্যে ভারতে বাতিল গাড়ির সংখ্যা দাঁড়াবে ২ কোটির অধিক। তার মধ্যে কিছু কিছু গাড়ির বয়স তো ইতিমধ্যেই ২০ বছরের উপরে ছড়িয়ে গেছে বলে জানা যাচ্ছে। কেন্দ্রের অন্য একটি রিপোর্ট থেকে জন্য গেছে বর্তমানে ভারতের চলাচলরত সব ধরনের যানবাহনের মধ্যে ১৩% গাড়ির বয়স ১৫ বছরের উপরে চলে গেছে। অন্যদিকে পরিবেশবিদরা এই বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে জানিয়েছেন এই বিষয়টি এখনই নিয়ন্ত্রণ না করা হলে পরবর্তীতে আবহাওয়াও পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে চলে যাবে।

বাজেটে পেশ করার সময় নির্মলার সীতারামন এই বিষয়ে বলেন – ‘সবুজ গতিশীলতাকে আরও গতিশীল করার জন্য, বৈদ্যুতিক যানবাহনে ব্যবহৃত ব্যাটারির জন্য লিথিয়াম-আয়ন সেল তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় মূলধনী পণ্য এবং যন্ত্রপাতি আমদানিতে শুল্ক অব্যাহতি বাড়ানো হচ্ছে।’

(আরও পড়ুন : Union Budget 2023 Live : কি পেল সাধারন মানুষ;কিসের দাম বাড়ল ? কিসের দাম কমল ?)

সাথে তিনি আরও বলেন – ‘পুরানো দূষণকারী যানবাহন প্রতিস্থাপন করা আমাদের অর্থনীতিকে সবুজ করার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ২০২১-২০২২ সালে বাজেটে উল্লিখিত যানবাহন স্ক্র্যাপিং নীতির অগ্রগতির জন্য আমি কেন্দ্রীয় সরকারের পুরানো যানবাহন স্ক্র্যাপ করার জন্য পর্যাপ্ত তহবিল বরাদ্দ করেছি। পুরানো যানবাহন এবং অ্যাম্বুলেন্স প্রতিস্থাপনে রাজ্যগুলিকেও সহায়তা করা হবে।’

কেন্দ্রের ঘোষণার পরেই রাজ্য সরকারও এই বিষয়ে নির্দেশ জারি করে। রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী এই প্রক্রিয়া ১লা এপ্রিল থেকে চালু করার কথা বলেছেন। পুরোনো গাড়ি জমা দিলে সরকারের তরফ থেকে কাগজ পাবেন যা দেখিয়ে আপনি নতুন গাড়ি কিনতে পারবেন। গাড়ি উপর কর ছাড় দেওয়ার বিষয়েও রাজ্য সরকার ভাবনা চিন্তা করছেন বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *