UPI Payments : দেশের বাইরে থেকে পাঠানো যাবে টাকা,লাগবে না কোন চার্জ।

ভারতে জিও আসার পর থেকে বদলে গেছে অনলাইন জগত। মানুষে অনলাইনে কেনাকাটা থেকে অ্যাপসের মাধ্যমে খাবার অর্ডার এই সবে ক্রমশ অভ্যস্ত হয়ে উঠছে। ডিজিটাল মাধ্যমে কোন কিছু কেনাকাটা করার জন্য করতে হয় ডিজিটাল পেমেন্ট (Digital Payment),যার মাধ্যম হিসাবে আমরা ব্যবহার করি ডেবিট কার্ড,ক্রেডিট কার্ড,নেট ব্যাঙ্কিং,ইউপিআই আবার কোন কোন সময় ক্যাশ অন ডেলিভারি।

সকল ডিজিটাল পেমেন্ট অপশনের মধ্য বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ইউপিআই (UPI)। গুগুল পে, পেটিএম,ফোন পে,ভীম ইউপিআই অ্যাপসগুলির মাধ্যমে কোন পেমেন্ট করা হোক বা যে কোন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো,কয়েক ক্লিকেই হয়ে যায় কাজ হাসিল,শুধু তাই নয় একসাথে কানেক্ট করা করা যায় অনেক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট,সব ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট গুলির ব্যালেন্স চেকও (Balance Check) করা যায় নিমেষে।

(আরও পড়ুন : ডিএ মামলায় বড় খবর,সোমবার হতে পারে নিস্পত্তি)

এতদিন ইউপিআই পেমেন্ট (Unified Payment Interface) কেবলমাত্র ভারতের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল,কিন্তূ এবার ভারতের গন্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ব্যবহার করা যাবে ইউপিআই। সম্প্রতি ন্যাশনাল পেমেন্টস কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া বা এনপিসিআই (NPCI) জানিয়েছে এবার থেকে যে সকল ভারতীয় বিদেশে থাকেন (NRI) এবং তাদের যদি ভারতে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকে,তবে তারা তাদের আন্তর্জাতিক মোবাইল নম্বর ব্যবহার করে ইউপিআই লেনদেন করতে পারবেন। এনপিসিআই সূত্রে জানা গেছে প্রাথমিক ভাবে দশটি দেশের অনাবাসী ভারতীয়রা এই সুবিধা পাবেন। দশটি দেশের তালিকায় আছে

  • সিঙ্গাপুর
  • সৌদি আরব,
  • সংযুক্ত আরব আমিরশাহী
  • ওমান
  • হংকং
  • কাতার
  • আমেরিকা
  • ইংল্যান্ড
  • অস্ট্রেলিয়া
  • কানাডা

আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে ব্যাঙ্কগুলিকে এই নয়া সিস্টেম চালু করার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে এনপিসিআই। আরও জানা গেছে এই প্রথম অবস্থায় এই দশটি দেশে ইউপিআই লেনদেন চালু হওয়ার পর ধাপে ধাপে বিশ্বের বাকি দেশ গুলিতেও এই সুবিধা চালু করা হবে।

কিছুদিন আগে ডিজিটাল লেনদেনকে সর্ব সাধারণের মধ্যে আরো জনপ্রিয় করার জন্য ভিম ইউপিআই (BHIM UPI) ও রূপে কার্ড (Rupay Card) ব্যবহারের উপর ইনসেনটিভ (Incentive) ঘোষণা করেছে কেন্দ্র সরকার। ওই প্রকল্পের অগ্রগতির জন্য সরকার ইতিমধ্যেই ২৬০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। বর্তমানে ভারতে ৩৫ কোটি মানুষ ডিজিটাল মাধ্যমে লেনদেন করেন যা আগামী কয়েক বছরের মধ্যে দ্বিগুন করার লক্ষ্যমাত্ৰা নিয়েছে সরকার। তবে যে হারে ডিজিটাল লেনদেন বাড়ছে বিশেষ করে করোনা মহামারীর পর তাতে করে কেন্দ্র সরকার তাদের লক্ষে অতি দ্রুত পৌঁছে যাবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার করুন

Leave a Comment