Chat GPT : প্লে ষ্টোর ডাউনলোড করে ব্যবহার করছেন অ্যাপ ? আসল কাহিনি জানুন।

২০২২ সালের শেষের দিকে টেক দুনিয়ার সব থেকে চর্চিত বিষয় ছিল চ্যাটজিপিটি (Chat GPT)। এই নিয়ে চর্চা এখনও চলছে এবং চলবে। ২০২২ সালের নভেম্বর মাসে OpenAI কোম্পানি এই চ্যাটজিপিটি নামক ওয়েবসাইট লঞ্চ করে। OpenAI হচ্ছে আমেরিকার আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স কোম্পানি। যার প্রতিষ্ঠাতা হচ্ছেন ইলন মাস্ক এবং স্যাম আল্ট ম্যান। ২০১৫ সালে আমেরিকার সান ফ্রানসিসকোয় এটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। চ্যাটজিপিটি লঞ্চের কিছুদিনের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে।

লঞ্চ হওয়ার মাত্র ৫ দিনের মধ্যেই ১০ লক্ষ গ্রাহক চ্যাটজিপিটির সাথে যুক্ত হয় যা একটি বিশ্ব রেকর্ড বলে দাবি করেছে এবং তাদের টুইটারেও ফলোয়ার সংখ্যা ১০ লক্ষ ছাড়িয়ে যায়। যেখানে বর্তমান জনপ্রিয় অ্যাপ গুলির ১০ লক্ষ ফলোয়ার হতে অনেক সময় পার করতে হয়েছে যেমন টুইটারের সময় লাগেছে ২ বছর,ফেসবুকের ১০ মাস,ড্রপ বক্সের লেগেছিল ৭ মাস,স্পটিফাই এর সময় লেগেছিল ৫ মাস।

চ্যাটজিপিটি কি ভাবে কাজ করে?

চ্যাটজিপিটি অনেকটা গুগলের মতো কাজ করে। আপনার যেকোনো প্রশ্নের উত্তর সঙ্গে সঙ্গে খুঁজে দিতে সক্ষম সাথে নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ যেমন ইমেইল লেখা, গ্রামারের ভুল ঠিক করা,গণিতের সমস্যা সমাধান,কোনো আর্টিকেল লেখা, প্রোগ্রাম লেখা ইত্যাদি নিমেষে করে ফেলে এই এআই(AI) প্লাটফর্মটি। এটি মানুষের মতো চিন্তা ভাবনা করে আপনার যেকোনো প্রশ্নের উত্তর খুঁজে দেবে বলে দাবি করেছে OpenAI সংস্থা । তবে চ্যাটজিপিটি যেহেতু একটি যান্ত্রিক মাধ্যম তাই যতটুকু তথ্য তার কাছে আছে সেই সমর্থ অনুযায়ী এটি আপনাকে তথ্য দেবে। ভবিষ্যতে এটি গুগল সার্চ ইঞ্জিন কে টক্কর দেবে বলে মনে করছেন অনেকেই।

OpneAi এখনও অব্দি কোনো ধরনের চ্যাটজিপিটি অ্যাপ লঞ্চ করেনি। এটি শুধু মাত্র openai.com নামক ওয়েবসাইটের মধ্যে সীমাবদ্ধ আছে। তবে চ্যাটজিপিটি জনপ্রিয় হওয়ার পরে প্লেস্টোর এবং অ্যাপ স্টোরে ওই নামে বেশি কিছু নকল চ্যাটজিপিটি অ্যাপ পাওয়া গেছে। এই অ্যাপগুলো মানুষকে প্রতারণায় ফেলে মানুষের কাছে থেকে টাকা আদায় করছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে। আসুন কিছু ফেক চ্যাটজিপিটি অ্যাপ কে চিনে রাখি।

GPT AI Chat – Chatbot Assistant :

এই অ্যাপটি মবটেক নামক কোম্পানি বানিয়েছে। আবার তারা দাবি করেছে যে এটি সব উন্নত মানের AI অ্যাসিস্ট্যান্স যা মানুষ ডাউনলোড করতে। এছাড়াও একাধিক ভাষায় সহ যেকোনো প্রশ্নের উত্তর লিখে এবং ভয়েস মাধ্যমে দিতে সক্ষম বলে দাবি করে এই অ্যাপ ডেভেলপাররা। বর্তমানে এই অ্যাপের ডাউনলোড সংখ্যা ৫০,০০০, রেটিং ৩.৭, রিভিউ সংখ্যা ১ হাজার এবং অ্যাপটির সাইজ ৮.৮৭ এমবি। বর্তমান ভার্সন ২.০.৯। অ্যাপটি ৮ ডিসেম্বর ২০২২ সালে লঞ্চ করা হয়।

ChatGPT 3: Chat GPT AI :

একমেন নামে এক কোম্পানি এই অ্যাপটি বানিয়েছে। অ্যাপটি ২০২২ সালের ১৫ ডিসেম্বর লঞ্চ করে তারা। এর ডাউনলোড সংখ্যা বর্তমানে ১০ হাজারেরও বেশি। রেটিং ৩.৮,অ্যাপ সাইজ ১৪ এমবি এবং রিভিউ আছে ৪০৯ টি। কোম্পানির মতে এই অ্যাপের মাধ্যমে কঠিন লেখাকে সহজ করে নিতে পারবেন,লেখায় কোনো ধরনের ব্যাকরণগত ভুল থাকলে অ্যাপ সেটিকে ঠিক করে দেবে,যেকোনো প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন,ইংরেজি থেকে অন্যান্য ভাষায় অনুবাদ করতে পারবেন,সিনেমার টাইটেল কে ইমোজিতে পরিবর্তন করতে পারবেন। এইগুলি ছাড়াও আরও অনেক কাজ এই অ্যাপ করতে পারে বলে জানিয়েছে একমেন কোম্পানি।

Talk GPT – Talk to ChatGPT :

এটি সব থেকে বেশি ডাউনলোড করা অ্যাপ। প্রায় ১ লক্ষেরও বেশি মানুষ এটি ডাউনলোড করেছে। এই অ্যাপের রেটিং যদিও ৩ এবং ডাউনোড সাইজ ৮.৩ এমবি। এটি বানিয়েছে টুইটসঅনগো নামে কোম্পানি। এই অ্যাপ সম্বন্ধে কোম্পানি লিখেছে –

“উপস্থাপন করা হচ্ছে TalkGPT অ্যাপ,যেখানে আপনি বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত ভাষা প্রক্রিয়াকরণ AI এর সাথে প্রাকৃতিক, কথোপকথন বিনিময় করতে পারেন”।

“চ্যাট জিপিটি (GPT-3) যেকোন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে আপনার ভয়েস ব্যবহার করুন এবং এমন একটি প্রতিক্রিয়া পান যা মনে হয় এটি একজন প্রকৃত ব্যক্তির কাছ থেকে আসছে। এর বিশাল জ্ঞানের ভিত্তি এবং জটিল প্রশ্নগুলি বোঝার এবং উত্তর দেওয়ার ক্ষমতা সহ, টকজিপিটি যে কোনও বিষয়ে কথোপকথনের জন্য নিখুঁত সঙ্গী”।

“এছাড়াও,একটি ক্লিকের মাধ্যমে আপনার কথোপকথন দ্রুত এবং সহজে যেকোনো ভাষায় অনুবাদ করার ক্ষমতা সহ, TalkGPT হল আন্তর্জাতিক কথোপকথনের জন্য আদর্শ অ্যাপ”।

(আরও পড়ুন : সম্পূর্ণ ফ্রীতে আইপিএল দেখাবে জিও? জানুন আসল খবর)

GPT Chat AI Writing Assistant :

মিক্স অ্যাপ ডেভেলপারদের দ্বারা এই অ্যাপটি বানানো হয়েছে। তারা দাবি করেছে এই অ্যাপটি AI টুল ব্যবহার করে না ব্যবহারকারীদের জন্য মাত্র তিন সেকেন্ডের মধ্যে ইমেল,প্রবন্ধ এবং নিবন্ধ লিখতে সাহায্য করবে এবং অ্যাপটি একাধিক টেমপ্লেটও অফার করে যা ব্যবহারকারীদের সিভি ও সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাপশনের জন্য একটি ব্যক্তিগত বায়ো লিখতে সাহায্য করবে। প্লেস্টোরে এর ডাউনলোড সংখ্যা ৫০ হাজার। রেটিং ২.৫ এবং ডাউনলোড সাইজ ৯.১ এমবি।

Aico – GPT AI companion :

ডাউনলোডের দিক থেকে অ্যাপটি অনেক বেশি বাকিদের তুলনায়। প্রায় ১ লক্ষেরও বেশি মানুষ এই অ্যাপটি ডাউনলোড করছে। অ্যাপটির রেটিং ৪.৩। ডাউনলোড করতে লাগবে ৩.৫ এমবি। অ্যাপ প্রস্তুতকারীরা বলেছে এটি সব থেকে শক্তিশালী AI ভয়েস চ্যাট। এটি একাধিক ভাষায় তথ্য দিতে সক্ষম বলেও জানিয়েছে তারা।

PersonAI – Advanced chatbot :

প্লেস্টোরে এই অ্যাপটিরও ডাউনলোড সংখ্যা ১ লাখেরও অধিক। এই অ্যাপটি এন্টারটেইনমেন্ট বিভাগের এবং অ্যাপটি ব্যবহারকারীদের জন্য রিওয়ার্ড থাকবে। অ্যাপটি ক্রয় বিভাগের। অ্যাপের সাইজ ৩১এমবি এবং রেটিং সংখ্যা ৩.১।

Emerson AI – Talk & Learn :

এটি Quickchat.Ai নামক সংস্থা বানিয়েছে। তবে এই অ্যাপের বাড়তি সুবিধা পেতে গেলে মাসে ৯.৯০ ডলার দিয়ে ক্রয় করতে হবে। অ্যাপটির ডাউনলোড করা হয়েছে ৫০ হাজার বার। রেটিং হচ্ছে ৩.৫ এবং ডাউনলোড করতে লাগবে মাত্র ১৭ এমবি।

বি দ্রঃ উপরিউক্ত অ্যাপগুলি রেটিং,রিভিউ,ডাউনলোড সংখ্যা,অ্যাপ সাইজ ইত্যাদি তথ্য গুলো বর্তমান সময় হিসেবে দেওয়া হয়েছে যা পরবর্তী সময়ে বদলে যেতে পারে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment