ওয়েসিস স্কলারশিপ : ১৪০০০ টাকা দিচ্ছে সরকার,তাড়াতাড়ি আবেদন করুন।

রাজ্যের আর্থিকভাবে দুর্বল ছাত্র ছাত্রীদের সুবিধার্থে রাজ্য সরকার চালু করেছে বিভিন্ন স্কলারশিপ,তাদের মধ্যে অন্যতম হল ওয়েসিস স্কলারশিপ (Oasis Scholarship)। জেনে নেওয়া যাক কারা এই স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্য,কিভাবে আবেদন করতে হবে,কত টাকা করে পাওয়া যায়,আবেদনের শেষ তারিখ ইত্যাদি।

ওয়েসিস স্কলারশিপ কি ?

পশ্চিমবঙ্গের সরকারের সংখ্যালঘু অনগ্রসর শ্রেনি কল্যাণ দপ্তরের তরফ থেকে প্রদান করা হয়ে থাকে এই স্কলারশিপ। এই স্কলারশিপটি কেবলমাত্র রাজ্যের এস টি (ST),এস সি (SC) ও ওবিসি (OBC) ছাত্র ছাত্রীদের জন্য। ওয়েসিস কথাটির পুরো অর্থ Online Application For Scholarship In Studies.

স্কলারশিপটি দুটি ভাগে বিভক্ত।

  • প্রিম্যাট্রিক : কেবলমাত্র এস টি (ST),এস সি (SC) পড়ুয়াদের জন্য।
  • পোস্ট ম্যাট্রিক : এস টি (ST),এস সি (SC) ও ওবিসি (OBC) পড়ুয়াদের জন্য।

কারা ওয়েসিস স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্য :

স্কলারশিপে আবেদন করতে হলে আবেদনকারীকে নীচের মানদণ্ড গুলি পুরন করতে হবে।

প্রি ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্যতা

  • আবেদনকারীকে এস টি (ST) ও এস সি (SC) শ্রেণীর হতে হবে।
  • কেবলমাত্র নবম ও দশম শ্রেণীর পড়ুয়ারা এই স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্য।
  • আগের পরীক্ষায় ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • আবেদনকারীর পারিবারিক বার্ষিক আয় ২ লক্ষ টাকার নিচে হতে হবে।

পোস্ট ম্যাট্রিক ওয়েসিস স্কলারশিপে আবেদনের যোগ্যতা

  • আবেদনকারীকে এস টি (ST),এস সি (SC) ও ওবিসি (OBC) শ্রেণীর হতে হবে।
  • একাদশ শ্রেণী এবং তার উপরে (যেমন দ্বাদশ,স্নাতক, স্নাতকোত্তর,পিএইচডি ও অন্যান্য কোর্স) পড়ুয়াদের জন্য।
  • আবেদনকারীর পারিবারিক বার্ষিক আয় আড়াই লক্ষ টাকার নিচে হতে হবে।
  • আগের পরীক্ষায় ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।

টাকার পরিমান :

স্কলারশিপে এস সি (SC),এস টি (ST) ও ওবিসি (OBC) আবেদনকারিরা আলাদা আলাদা পরিমান টাকা পেয়ে থাকে।

(আরও পড়ুন : মোবাইল নাম্বার দিয়ে রেশন কার্ড চেক পদ্ধতি : স্ট্যাটাস চেক,নাম চেক করুন সহজেই)

প্রি ম্যাট্রিক স্কলারশিপ :

  • বছরে (দশ মাস ধরে প্রতি মাসে ১৫০ টাকা করে ও বছরে একবার ৭৫০ টাকা) মোট ২২৫০ টাকা দেওয়া হয়।
  • যে সকল পড়ুয়া হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করে তাদেরকে (৭৫০ টাকা করে ১০ মাস ধরে ও বছরে এককালীন ১০০০ টাকা) মোট ৮৫০০ টাকা দেওয়া হয়।

পোস্ট ম্যাট্রিক স্কলারশিপ :

একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী,আই টি আই (ITI),পলিটেকনিক কোর্সে পাঠরত সকল এস সি (SC),এস টি (ST) পড়ুয়ারা (মাসে ২৩০ টাকা) বছরে ২৭৬০ টাকা ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে বার্ষিক ৯০০০ টাকা (মাসে ৭৫০ টাকা) করে পাবে। ওবিসি (OBC) পড়ুয়ারা বছরে ১৯২০ টাকা (মাসে ১৬০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে ৩১২০ টাকা ( মাসে ২৬০ টাকা) করে পাবে।

সাধারণ স্নাতক কোর্সে পাঠরত সকল এস সি (SC),এস টি (ST) পড়ুয়ারা বছরে ৩৬০০ টাকা (মাসে ৩০০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে বার্ষিক ৯০০০ টাকা (মাসে ৭৫০ টাকা) করে পাবে। ওবিসি (OBC) পড়ুয়ারা বছরে ২৫২০ টাকা (মাসে ২১০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে ৪৮০০ টাকা ( মাসে ৪০০ টাকা) করে পাবে।

B.Pharm,LLB,B Nursing,Hotel Managemant,স্নাতকোত্তর ইত্যাদি কোর্সে পাঠরত সকল এস সি (SC),এস টি (ST) পড়ুয়ারা বছরে ৬৩৬০ টাকা (মাসে ৫৩০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে বার্ষিক ৯৮৪০ টাকা (মাসে ৮২০ টাকা) করে পাবে। ওবিসি (OBC) পড়ুয়ারা বছরে ৪০২০ টাকা (মাসে ৩৩৫ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে ৬১২০ টাকা ( মাসে ৫১০ টাকা) করে পাবে।

মেডিকেল,ইঞ্জিনিয়ারিং,M Phil,PhD,LLM,Bsc (Agriculture) কোর্সে পাঠরত সকল এস সি (SC),এস টি (ST) পড়ুয়ারা বছরে ৬৬০০ টাকা (মাসে ৫৫০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে বার্ষিক ১৪৪০ টাকা (মাসে ১২০০ টাকা) করে পাবে। ওবিসি (OBC) পড়ুয়ারা বছরে ৪২০০ টাকা (মাসে ৩৫০ টাকা) ও হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করলে ৯০০০ টাকা ( মাসে ৭৫০ টাকা) করে পাবে।

আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস :

  • কাস্ট সার্টিফিকেট।
  • পাসপোর্ট সাইজ ফটো।
  • আবেদন কারীর আধার কার্ডের সঙ্গে যুক্ত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন…
  • পূর্ববর্তী পরীক্ষার মার্কশীট।
  • পড়ুয়ার আধার কার্ড,আধার কার্ড না থাকলে আধার এনরোলমেন্ট আই ডি।
  • খাদ্য সাথী কার।
  • জন্ম তারিখের প্রমাণপত্র।

আবেদনের পদ্ধতি :

  • ওয়েসিস স্কলাশিপের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট oasis.gov.in যেতে হবে।
  • STUDENT’S REGISTRATION অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  • এরপরের পেজে আবেদনকারীকে জেলা নির্বাচন করতে বলা হবে।
  • যে সকল পড়ুয়া পশ্চিমবঙ্গের কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পড়াশোনা করে তারা সেই প্রতিষ্ঠানটি যে জেলায় অবস্থিত এই জেলাটি নির্বাচন করতে হবে। যে সকল পড়ুয়া পশ্চিমবঙ্গের বাইরে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পড়াশোনা করে তাদেরকে পড়ুয়ার স্থায়ী ঠিকানার জেলা নির্বাচন করতে হবে।
  • এর পরের ধাপে কাস্ট সার্টিফিকেট নম্বর দিয়ে সাবমিট করতে হবে।
  • এর পরে রেজিস্ট্রেশন পেজে সকল তথ্য সঠিক ভাবে পূরণ করতে হবে।
  • আবেদনকারীর রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ হলে ইউজার আইডি (User Id) ও পাসওয়ার্ড পরবর্তীতে ব্যাবহারের জন্য ডাউনলোড/লিখে নিতে হবে।
  • ওই ইউজার আইডি (User Id) ও পাসওয়ার্ড দিয়ে পুনরায় লগ ইন করে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ছাড়াও সমস্ত তথ্য সঠিক ভাবে ফিল আপ করে ‘Verify and Lock’ অপশনে ক্লিক করলেই অনলাইনে ফর্ম ফিল আপের কাজ সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।
  • এরপর আবেদনকারীকে ফিল আপ করা ফর্মটি ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে বিডিও অফিসে জমা করতে হবে।
  • বিডিও অফিসে ফর্ম জমা করার সময় সকল অরিজিনাল ডকুমেন্টস,ডকুমেন্টসের জেরক্স কপি ও আবেদনকারীর ছবি সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

ওয়েসিস স্কলারশিপ রিনিউয়াল :

এই স্কলারশিপ থেকে টাকা পেতে হলে প্রত্যেক বছর রিনিউয়াল বাধ্যতামূলক।প্রতি বছর রিনিউ না করালে মিলবে না টাকা। নিচের পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করে আবেদনকারী সহজেই স্কলারশিপটি রিনিউ করতে পারবেন।

  • প্রথমে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে স্টুডেন্ট কর্নার লেখার নিচে রিনিউয়াল স্কলারশিপ অপশনে ক্লিক করে আই ডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে।
  • লগইন করে আবেদনকারী আগের দেওয়া তথ্যগুলোতে কোন পরিবর্তন করতে চাইলে তা করে নিতে পারবেন।
  • Renew Application বাটনে ক্লিক করে আবেদনকারীর সর্বশেষ একাডেমিক ডকুমেন্টস তথ্য আপলোড করে ‘Renew and Lock Application’ বাটনে ক্লিক করে রিনিউয়াল সম্পূর্ণ করতে হবে।
  • এরপর সাবমিট করা ফর্মটি প্রিন্ট করে বিডিও অফিসে জমা করতে হবে। (নতুন ফর্ম বিডিও অফিসে জমা করার সময় তার সঙ্গে যে ডকুমেন্টস জমা করা হয়েছিল রিনিউয়াল ফর্ম জমা করার সময় সেই ডকুমেন্টস গুলোই জমা করতে হবে)

ওয়েসিস স্কলারশিপ স্ট্যাটাস চেক :

আবেদন বা রিনিউ করার পর স্কলারশিপটির স্ট্যাটাস চেক করতে হলে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘Track Application Status’ এ ক্লিক করতে হবে।

এর পর জেলা সিলেক্ট করতে হবে।

পরের পেজে ইউজার আইডি (User ID),জেলা ও সেশন (Session) সিলেক্ট করে ক্যাপচা সলভ করে ‘Check Status’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।

সহায়তা বা হেল্প লাইন নম্বর :

স্কলারশিপ কোন জিজ্ঞাসা থাকলে +91 8420023311 নম্বরে কল করে জেনে নেওয়া যাবে ।

আবেদনের শেষ তারিখ :

ওয়েসিস স্কলারশিপ ২০২২-২০২৩ আবেদনের শেষ তারিখ ৩১ জানুয়ার‍ি,২০২৩।

অফিসিয়াল ওয়েবসাইট : oasis.gov.in

শেয়ার করুন

Leave a Comment