১২ শতাংশ ডিএ (DA) বাড়ালো সরকার;কিছুটা স্বস্তি সরকারি কর্মচারীদের।

সামনে বিধানসভা নির্বাচন,সেই নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখে সরকারি কর্মীদের ডিএ ১২ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল ত্রিপুরা সরকার। মঙ্গলবার ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা এক সাংবাদিক বৈঠকে এই ঘোষণা করেন। তিনি আরও জানান এর ফলে উপকৃত হবেন রাজ্যের ১ লক্ষ ৪ হাজার ৬০০ কর্মচারী ও ৮০ হাজার ৮০০ পেনশন প্রাপক।

যদিও ২০১৮ সালে ক্ষমতায় এলে সপ্তম বেতন কমিশনের ভিত্তিতে সরকারি কর্মচারীদের ডিএ (DA) অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতা বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিজেপি সরকার। কিন্তু প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করে ডিএ (DA) না বাড়ানোই যারপরনাই ক্ষুব্ধ ছিলেন সরকারি কর্মচারীরা। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ হলো ২০২২ সালে এসে,ঠিক ২০২৩ বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বে।

(আরও পড়ুন : ডাউনলোড করে দেখে নিন ২০২৩ সালের পশ্চিমবঙ্গে সরকারি স্কুলের ছুটির তালিকা।)

এই ঘটনায় সরব হয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলগুলো। বিরোধীদের অভিযোগ ক্ষমতায় আসার পর দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে রাজ্যে,ডিএ (Dearness Allowance Hike In Tripura) নিয়ে প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে সরকার,তাই ভোটের মুখে এসে এখন সরকারি কর্মীদের মন ভরানোর চেষ্টা করছে।

যদিও পড়শি রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা বর্তমানে ৩ শতাংশ হারে দিয়ে ডিএ (DA) পেয়ে থাকেন। তাদের ডিএ (Dearness Allowance West Bengal) বাড়ানোর দাবি বহুদিনের হলেও সরকার কর্ণপাত করেনি,সেই কারণে বাধ্য হয়ে তাদের সংগঠন কলকাতায় হাইকোর্টে মামলা করেছে।

কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে সরকারি কর্মচারীদের বকেয়া ডিএ মিটিয়ে দেয়ার আদেশ দিলে সরকার সুপ্রিম কোর্টে যায়,যার শুনানি হবে ১৬ই ডিসেম্বর (সোমবার)। পশ্চিমবঙ্গের সরকারি কর্মচারীরা মনে করছেন এই দিনই ডিএ দেওয়ার আদেশ দেবে সুপ্রিম কোর্ট।

শেয়ার করুন

Leave a Comment