নিজেরাই ঘোষণা করল নিজেদের ছুটি,ডিএ মামলায় চাপ বাড়ল সরকারের।

নতুন বছর শুরু হওয়ার আগেই ডিএ নিয়ে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। বর্তমানে সুপ্রিম কোর্টে ঝুলছে ডিএ (Dearness Allowance) মামলার রায়। আগামী ১৬ জানুয়ারি পরবর্তী বকেয়া ডিএ (DA) মামলার রায়ের শুনানি ঘোষণা করেছে সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু তার আগেই রাজ্যের সরকারের উপর চাপ বাড়াতে জোরদার আন্দোলনে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করে দিলেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। প্রাপ্য ডিএর দাবিতে আগামী ২৭ জানুয়ারি সরকারি দপ্তর অচলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। দেবপ্রসাদ হালদার (ইউনিটি ফোরামের আহ্বায়ক) জানিয়েছেন ২৭ জানুয়ারি তারা গণ ছুটির ডাক দিয়েছেন,এর সাথে চলবে সরকারি কর্মচারীদের লাগাতার অবস্থান বিক্ষোভ।

ডিএ অর্থাৎ মহার্ঘ ভাতা নিয়ে সরকারি কর্মচারীরা দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছেন। বর্তমানে রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা (West Bengal Government Employees Da News) মাত্র ৩ শতাংশ ডিএ পান,যা কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের তুলনায় ৩৫ শতাংশ কম।

(আরও পড়ুন : ১২ শতাংশ ডিএ (DA) বাড়ালো সরকার;কিছুটা স্বস্তি সরকারি কর্মচারীদের।)

এর আগে বহুবার সরকারের কাছে প্রাপ্য মহার্ঘ ভাতার আর্জি জানিয়ে কোন কাজ না হওয়ায় ২০১৬ সালে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করা হয়। ২০২২ সালের মে মাসে কলকাতা হাইকোর্ট আগামী তিন মাসের মধ্যে সরকারি কর্মচারীদের প্রাপ্য ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার আদেশ দেয়। কিন্তু ওই রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দাখিল করে রাজ্য সরকার,কিন্তু রিভিউ পিটিশন খারিজ করে আগের রায় বহাল রাখে কলকাতা হাইকোর্ট। ২০ আগস্ট পার হয়ে গেলেও বকেয়া ডিএ না পাওয়ায় সরকারের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করে সরকারি কর্মচারীদের সংগঠন। কলকাতায় হাইকোর্ট রাজ্যের মুখ্য সচিব ও অর্থ সচিবকে হলফনামা পেশ করার আদেশ দেয়। হাইকোর্টের আদেশ মতো হলফনামা পেশ করে রাজ্য সরকার পাশাপাশি সরকার হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করে। যার শুনানির তারিখ ধার্য করা হয়েছে জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে (সম্ভবত ১৬ জানুয়ারি)।তবে সরকারি কর্মচারীরা মনে করছেন ওই দিনই তাদের ডিএ মামলায় তাদের জয় নিশ্চিত হয়ে যাবে।

সম্প্রতি সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) ১২ ও ৪ শতাংশ হারে বৃদ্ধি করেছে ত্রিপুরা ও ওড়িষ্যা সরকার। যা আসন্ন শুনানির আগে রাজ্য সরকারের উপর চাপ আরও বাড়াবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment